ট্রাম্পের ভাষণ ‘ঘেউ-ঘেউ করা কুকুরের চিৎকার’: উত্তর কোরিয়া

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে উত্তর কোরিয়াকে হুমকি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে ভাষণ দিয়েছেন, সেটাকে ‘ঘেউ-ঘেউ করা কুকুরের চিৎকার’ বলে অভিহিত করেছেন উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও কূটনীতিক রি ইয়ং হো।

সাধারণ অধিবেশনে ট্রাম্পের ভাষণের পরিপ্রেক্ষিতে এটাই উত্তর কোরিয়ার প্রথম জবাব বলে বৃহস্পতিবার বিবিসির খবরে বলা হয়। পাশাপাশি ‘বাধ্য করা হলে যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়াকে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেবে’ ট্রাম্পের এমন সতর্কবার্তাকে তিনি অগ্রাহ্য করেছেন বলে খবরে বলা হয়।

নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সদরদপ্তরের কাছে একটি হোটেলের সামনে ট্রাম্পের ভাষণের প্রতিক্রিয়া জানতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রি বলেন, “কথায় আছে না, ‘কুকুর ঘেউ ঘেউ করলেও কুচকাওয়াজ বন্ধ থাকে না’।”

টেলিভিশনে সম্প্রচারিত মন্তব্যে রি আরো বলেন, “যদি ঘেউ ঘেউ করে আমাদের বিস্মিত করে দেওয়ার চিন্তা করে তাহলে সে স্বপ্ন দেখছে।”

উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানার বিষয়ে গত বুধবার জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, যদি এটি যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের হুমকি সৃষ্টি করে, তবে তিনি উত্তর কোরিয়াকে ‘সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস’ করে দেবেন।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও উ. কোরিয়া পারমাণবিক পরীক্ষা চালানো অব্যাহত রেখেছে। যা কিনা যুক্তরােষ্ট্রর মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নিউইয়র্কের জাতিসংঘের সদর দফতরের পাশে রি ইয়ং হো সাংবাদিকদের বলেন, জাতিসংঘে বক্তৃতায় উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উনকে ‘রকেট ম্যান’ হিসেবে উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেছেন ‘রকেট ম্যান’ নিজের এবং তার শসনের আত্মঘাতী মিশনের পথে।

এ প্রসঙ্গে রি ইয়ং বলেন, যখন মি. ট্রাম্প মি. কিমকে ‘রকেট ম্যান’ বলেন, তখন আমি তার সহযোগীদের জন্য দুঃখ অনুভব করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *