যে ম্যাচের দাম ৭ হাজার কোটি টাকারও বেশি জেনে নিন কিভাবে?


ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্যতম সেরা আকর্ষণ ‘ম্যানচেস্টার ডার্বি’ মানে ম্যানচেস্টারের দুই বড় দল ইউনাইটেড ও সিটির লড়াই। সাম্প্রতিক সময়ে প্রিমিয়ারের সেরা এই দুই ক্লাব উপহার দিয়েছে দারুণ উপভোগ্য কিছু লড়াই। এই দুই ক্লাবে আছেন দারুণ কিছু ফুটবলার। দুই ক্লাবের ডাগআউটও আলোকিত করে আছেন এই মুহূর্তে ফুটবল দুনিয়ার অন্যতম সেরা দুই কোচ—হোসে মরিনহো ও পেপ গার্দিওলা। তবে ইউনাইটেড ও সিটির ফুটবলারদের সম্মিলিত মূল্য আপনার চোখ কপালে তুলতেই পারে।

এই মৌসুমে দল ঢেলে সাজাতে গিয়ে ইতিহাসের সবচেয়ে দামি রক্ষণভাগ গড়েছেন পেপ গার্দিওলা। আর মরিনহো তো সব সময়ই খরুচে দল বানাতে সিদ্ধহস্ত। রোববার রাতের ম্যাচে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খেলোয়াড়দের মোট বাজারমূল্য ৩০১.৪ মিলিয়ন পাউন্ড, বাংলাদেশি টাকায় যা ৩ হাজার ৩২২ কোটি টাকা প্রায়। অন্যদিকে, ম্যানচেস্টার সিটির খেলোয়াড়দের দাম দাঁড়ায় ৩৫৪.৯ মিলিয়ন পাউন্ড, টাকায় ৩ হাজার ৯১২ কোটি টাকা প্রায়। মানে সেদিন ‘মাত্র’ ৬৫৬.৩ মিলিয়ন পাউন্ডের দল নিয়ে খেলেছে দুই দল। ফুটবল ইতিহাসে এক ম্যাচে দুই দলের মোট মূল্য এতটা এর আগে কখনোই দেখা যায়নি। একটি ম্যাচের দাম বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৭ হাজার ২৩৫ কোটি টাকা প্রায়! ভাবা যায়!

দুই দল মিলিয়ে সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফরোয়ার্ড রোমেলু লুকাকু। এই মৌসুমের শুরুতেই ৯০ মিলিয়ন পাউন্ডে এভারটন থেকে ইউনাইটেডে এসেছেন তিনি। ভাগ্যের কী নিদারুণ পরিহাস, ম্যানচেস্টার সিটির দুই গোলেই ‘অবদান’ রয়েছে ম্যাচের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়ের। তাতে নিজ দলের হারও নিশ্চিত হয়েছে। সবচেয়ে সস্তা খেলোয়াড়ও ইউনাইটেডের, দুই তরুণ তুর্কি মার্কাস রাশফোর্ড ও জেসে লিনগার্ড দুজনই যুব একাডেমি থেকে উঠে আসায় তাঁদের বাজারমূল্য প্রায় শূন্য।

টবলের বাজার হঠাৎ করেই বদলে গেছে ভীষণ। রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে বার্সেলোনা থেকে মাত্র একজন খেলোয়াড়ই (নেইমার) কিনেছে পিএসজি। সে তুলনায় ইউনাইটেডের ৩০১.৪ কিংবা সিটির ৩৫৪.৯ মিলিয়ন পাউন্ডের দল নিশ্চয়ই খুব বেশি নয়। মজার ব্যাপার হচ্ছে, ইতিহাসের সবচেয়ে দামি ডিফেন্ডার বেঞ্জামিন মেন্ডিকে কিনলেও রোববার তাঁকে বেঞ্চেও জায়গা দেননি গার্দিওলা। তাতে অবশ্য খুব ক্ষতি-বৃদ্ধি হয়নি এই স্প্যানিশ কোচের। ২-১ গোলের জয় নিয়ে ইংলিশ লিগের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে বেশ জাঁকিয়ে বসেছে সিটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইউনাইটেডের চেয়ে ১১ পয়েন্টে এগিয়ে গার্দিওলার শিষ্যরা। সূত্র: সকারওয়ে, ট্রান্সফার মার্কেট।

পজিশন

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

ম্যানচেস্টার সিটি

গোলরক্ষক

ডেভিড ডি গিয়া (২১ মিলিয়ন)

এডারসন (৩৭ মিলিয়ন)

ডিফেন্ডার

ক্রিস স্মলিং (১২ মিলিয়ন)

কাইল ওয়াকার (৫০ মিলিয়ন)

ডিফেন্ডার

মার্কোস রোহো (১৮ মিলিয়ন)

নিকোলাস ওটামেন্ডি (৩৩ মিলিয়ন)

ডিফেন্ডার

অ্যাশলি ইয়াং (১৬ মিলিয়ন)

ভিনসেন্ট কোম্পানি (৬.৭ মিলিয়ন)

ডিফেন্ডার

আন্তোনিও ভ্যালেন্সিয়া (১৮ মিলিয়ন)

ফাবিয়ান ডেলফ (৮ মিলিয়ন)

মিডফিল্ডার

অ্যান্ডার হেরেরা (২৮.৮ মিলিয়ন)

ডেভিড সিলভা (২৪ মিলিয়ন)

মিডফিল্ডার

নেমানিয়া ম্যাটিচ (৪০ মিলিয়ন)

ফার্নান্দিনহো (৩০ মিলিয়ন)

মিডফিল্ডার

জেসে লিনগার্ড (০)

কেভিন ডি ব্রুইনা (৫৪.৫ মিলিয়ন)

ফরোয়ার্ড

মার্কাস রাশফোর্ড (০)

রহিম স্টার্লিং (৪৯ মিলিয়ন)

ফরোয়ার্ড

অ্যান্থনি মার্শিয়াল (৫৭.৬ মিলিয়ন)

লেওর‍্য সানে (৩৭ মিলিয়ন)

ফরোয়ার্ড

রোমেলু লুকাকু (৯০ মিলিয়ন)

গ্যাব্রিয়েল জেসুস (২৮ মিলিয়ন)

মোট

৩০১.৪ মিলিয়ন পাউন্ড

৩৫৪.৯ মিলিয়ন পাউন্ড

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *