বিলগেটস বনাম বাংলাদেশী

মাইক্রোসফটের চেয়ারম্যান বিল
গেটস; তুরস্কের নতুন অফিসের জন্য একজন
দক্ষ লোক খুঁজছেন। প্রায় ২০,০০০
আবেদনপত্র জমা পড়লো!!
এই ২০,০০০ জনের মধ্যে, ‘তরফদার’ নামের
এক বাংলাদেশীও আছেন।
বিল গেটস, ২০,০০০ আবেদনকারীকেই এক
সাথে একটা বড় হল রুমে ডাকলেন।
বিল গেটস
বললেন–“এখানে যারা ‘জাভা
প্রোগ্রামিং’
পারেন, শুধু তারা থাকবেন। বাকিরা,
দয়া করে আসতে পারেন।”
২০,০০০ এর মধ্যে ১০,০০০ জন হল ত্যাগ
করলেন। তরফদার সাহেব
মনে মনে ভাবলেন-“আমি বরং থেকেই
যাই এখানে..আর
‘জাভা প্রোগ্রামিং’ এমন
কি জিনিষ!! চাকরিটা পেলে, দুই
দিনে না’হয় শিখে নিব। দাড়িয়েই
থাকি বরং…”
বিল গেটস এবার
বললেন–“এখানে যাদের
‘নেটওয়ার্কিং এ দক্ষতা আছে, শুধু
তারা থাকবেন। বাকিরা,
দয়া করে আসতে পারেন।”
১০,০০০ এর মধ্যে ৫,০০০ জন হল ত্যাগ
করলেন। তরফদার সাহেব
মনে মনে ভাবলেন-“‘নেটওয়ার্কিং’
আর এমন কি জিনিষ!!চাকরিটা পেলে,
দুই দিনের মামলা এটা!”
বিল গেটস এবার
বললেন-“এখানে যাদের ‘উইন্ডোজ ও
লিনাক্সএ দক্ষতা আছে’, শুধু
তারা থাকবেন। বাকিরা,
দয়া করে আসতে পারেন।”
৫,০০০ এর মধ্যে ৩,০০০ জন হল ত্যাগ করলেন।
তরফদার সাহেব মনে মনে
ভাবলেন-“ব্যাপার না।
চাকরিটা পেলে, দুই দিনে শর্ট কোর্স
করে নিব।”
বিল গেটস এবার বললেন, যারা তুরস্কের
ভাষা ভালোমতো বলতে পারেন
তারা থাকবেন।আর
বাকিরা,
দয়া করে আসতে পারেন।”
২,০০০ এর মধ্যে ১,৯৯৮ জন হল ত্যাগ করলেন…
দুইজন দাড়িয়ে রইলেন। তরফদার আর আরেক
ভদ্রলোক।
বিল গেটস বললেন–“গুড, তোমরা দুইজন
আমাদের
সকল চাহিদা ফুলফিল করেছো।
তোমাদের এখন
আমি টেস্ট নিবো। তবে তার আগে
তোমরা দুইজন
একে অপরের সাথে তুরস্কের ভাষায় কিছু
কথা বলো তো দেখি”
তরফদার সাহেব পাশের
ভদ্রলোককে আমতা আমতা করে
বললেন–“ভাইজান,
কেমন আছুইন”
পাশের ভদ্রলোক দাঁত বের
করে বললেন-‘এই
তো,বালা আছি…আফনে?’

happy-man-clipart-free-vector-cartoon-man-clip-art_107949_Cartoon_Man_clip_art_hight

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

সাধারণত ৭ টাইপের মেয়ে পাওয়া যায় পৃথিবীতে

সাধারণত ৭ টাইপের মেয়ে পাওয়া যায় পৃথিবী তে-

peer-clipart-ab_girls_clip_art
1. HARD DISK Girls: … … যে কনো ঘটনা জীবনেও ভুলবে না ! 
2. RAM Girls: একটু বেহায়া টাইপের,কিছু মনে করে না;যা খুশি তাই করতে পারেনঃপি
3. SCREEN SAVER Girls: শুধু মাত্র দেখতেই সুন্দর, আর কনো কোয়ালটি নাই।
4. INTERNET Girls: এরা কখন কি করবে বা এদের মন কি চায় , এরা নিজেরাও জানে না বা কেউ বুঝতে পারে না !!!
5. SERVER Girls: Always busy পাবেন,বিশেষ করে যখন প্রয়োজন পড়ে !
6. MULTIMEDIA Girls: সব কাজে পারদর্শী,১০-১২ বয়ফ্রেন্ড কোনো ম্যাটার না।
7. VIRUS Girls : এই টাইপের মেয়েদের আরেক নাম হল ‘WIFE’ , একবার তোমার জীবনে ডুকবে তো format দিলেও যাবে না। ঃপিঃপিঃপি…লুল

এই পোস্টের সাথে একমত হলে
লাইক,কমেন্ট ও শেয়ার করুন।
আর কোন টাইপের মেয়ে বেশি ভালো
or ভয়ঙ্কর মনে হল???

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

 

আমেরিকান, ইন্ডিয়ান আর এক বাংলাদেশী।

সাগরে নৌকা নিয়ে
ঘুরত
আমেরিকান, এক
ইন্ডিয়ান আর এক
বাংলাদেশী।
হঠাৎ পানি থেকে
একটা দৈত্য
উঠে
এল।
দৈত্য প্রচন্ড রাগী
কন্ঠে
বললঃ তোরা
অনুমতি ছাড়াই আমার
এলাকায়
ঢুকেছিস।
এখন আমি তোদের
মেরে ফেলব!
.
ওরা তো ভয়ে হাউ-মাউ
করে
কাঁদতে
লাগল।
ওদের কান্নায় দৈত্যের
মন
কিছুটা নরম
হল।
দৈত্য বললঃ ঠিক
আছে, তোদের
একটা
চান্স
দিচ্ছি। তোরা কোন
কিছু
সাগরের
পানিতে
ফেলে দিবি।
যদি আমি সেটা তুলে
আনতে
পারি
তাহলে
তোদের মেরে ফেলব।
আর যদি না
তুলে
আনতে না পারি ছেড়ে
দেব।
.
আমেরিকান লোকটি
বন্দুকের
একটা
বুলেট
পানিতে ফেলল। দৈত্য
সাথে
সাথে
সাগরের
পানিতে ডুব দিয়ে সেটা
তুলে
আনল,আর
আমেরিকান
লোকটিকে মেরে
ফেলল।
.
এবার ইন্ডিয়ান
লোকটি একটা
সুই
পানিতে
ফেলে দিল।দৈত্য সাথে
সাথে
সাগরের
পানিতে ডুব দিয়ে সেটা
তুলে
আনল,আর
ইন্ডিয়ান লোকটিকে
মেরে
ফেলল।
.
এবার বাংলাদেশী
লোকটির
পালা।
সে ওর- স্যালাইনের
প্যাকেট
খুলে
সবটুকু
স্যালাইন পানিতে
ঢেলে দিল !!!
এখন ঠেলা
সামলাও,বাঙ্গালি
কি
জিনিস.

download
কি ঠিক আছে না……???

মৃত্যু সজ্জায় স্বামী কথা বলছে

মৃত্যু সজ্জায় স্বামী কথা বলছে

স্ত্রীর সাথে—
স্বামী : আমি মরে গেলে ২০ একর জমি আছে সেটা বিক্রি করে দিও।
স্ত্রী : ওগো তুমি মরে গেলে আমার কি হবে ওগো..? এই জমি দিয়ে আমার কিছু হবেনা গো।
স্বামী : ব্যাংকে তোমার নামে ২০
লাক্ষ টাকা রাখছি।
স্ত্রী : ওগো তাতেও আমার হবেনা গো।
স্বামী : মাটির নিচে ৩ কলস স্বর্ন রাখছি সেটা তুলে নিও।
স্ত্রী : ওগো, তাতেও আমার হবেনা গো, আমার কি হবে গো।
স্বামী : কিরে, তুই কি রাক্ষস নাকি, এত কিছুতেও তোর হবে না..?
তাহলে আমি মরার পর একটা বিয়া করিস।
স্ত্রী : সুইট স্বামী গো, মনের কথাটা
কইছো গো।

passed-out-clip-art-322640

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

নির্মম সত্য ঘটনা। পরলে মজা পাবেন রাত ১২ টা ১৮

“”দোস্ত কই তুই? আমার ইমারজেন্সি ড্রাগ দরকার, তোর কাছে থাকলে দে দোস্ত, প্লিজ প্লিজ দোস্ত, চাল্লু আমারে ড্রাগ দে প্লিজ আই নিড ড্রাগ রাইট নাউ””
.
ম্যাসেজ টা লিখে বাবুকে সেন্ড করে দিল তপু, ম্যাসেজ ডেলিভারি হয়েছে অথচ ড্রাগ আসছে না, যত সময় যাচ্ছে তপু ড্রাগের জন্য পাগল হয়ে যাচ্ছে,
.
পরদিন দুপুর ১টা ২৮
.
হাসপাতালের বেডে শুয়ে আছে তপু,তার হাতে পায়ে ব্যান্ডেজ,পাশে তপুর মা ফুপিয়ে ফুপিয়ে কাদছে, গতরাতে তপুর বাবা তপুকে ইচ্ছামত বেধরম পিটিয়েছে “”কুত্তার বাচ্চা ড্রাগ চাস!! ড্রাগ এডিক্টেড হইয়া গেছস! তোর ড্রাগ নেয়া আজকে আমি ছুটাচ্ছি, “” বলেই তপুর বাবা, ঘরে থাকা ক্রিকেট ব্যাট,স্টাম্প দিয়ে পিটিয়ে ..এমনকি পরনের বেল্ট দিয়ে তপুকে মেরে
তক্তা বানিয়ে ফেলেছে
.
তপু ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যানস খেলার সময় ক্ল্যানে ড্রাগের (ড্রাগন) জন্য রিকুয়েস্ট দেয়, তখন ক্ল্যানে বাবু(এক্টিভ) ছিলনা সেইকারনে তপু বাবুর ফোনে ম্যাসেজ দিয়ে ক্ল্যানে এসে তপুকে ড্রাগ ডোনেট করতে বলে!
.
কিন্তু তপু ভুলবশত সেই ম্যাসেজটা বাবুকে না পাঠিয়ে “বাবা” নামে সেভ করা কন্টাক্ট নাম্বারে পাঠিয়ে দিয়েছিল সেই কারনে তপুর বাবা তপুকে ড্রাগ
এডিক্টেড ( মাদকাসক্ত) ভেবে মারধর করে..
.
পরদিন তপুর বাবা তার ভুল বুঝতে পারে যে আসলেই এই ড্রাগ সেই ড্রাগ না এই ড্রাগ হলো ক্যাশ অফ ক্ল্যানের একটি শক্তিশালী ট্রুপ্স ড্রাগন যা সংক্ষেপে ড্রাগ নামে পরিচিত…
.
দুই মাস পর.
.
তপুর বাবা এখন সারাদিন ক্ল্যাশ অফ ক্ল্যান্স খেলে, বাসায় খেলে, অফিসে খেলে, চায়ের দোকানে, পাড়ার মাঠে খেলে, কলিগদের আড্ডায় খেলে, বিয়ে বাড়িতে খেলে মরা বাড়িতে ও খেলে, জিন্দা বাড়িতে ও খেলে
,
.
আগে তপুকে তার বাবা জিগ্যেস করতো!
.
“”কিরে তোর পড়াশুনার খবর কি?? টাকা লাগবে?
পড়াশুনা কর ঠিকমত “”
.
আর এখন জিগ্যেস করে
.
“” কিরে তোর টাউনহল আপ দিসস? তোর পেক্কা, গোলেম আনলক কবে হবে?
তোর লাস্ট এটাক টা ভাল ছিলো! তপু তুই কি হেলোয়ান কল্ড্রন টা পেয়েছিস, আমি দুইটা পেয়েছি সাথে একটা জেমস বক্স ও পেয়েছি, তপু তর এটাকে কোন সমস্যা হলে আমাকে বলিস আমি হেল্প করব!
.
তপু আর তপুর বাবা এখন একি ক্ল্যানে খেলে তারা দুজনই ক্ল্যানের কো-লিডার, তপুর বাবা এখন প্রায়ই ক্ল্যানে রিকুয়েস্ট দেয়..
.
“” আমার ইমারজেন্সি ড্রাগ দরকার, তোদের কারো কাছে থাকলে দে প্লিজ প্লিজ চাল্লু আমারে ড্রাগ দে প্লিজ আই নিড ড্রাগ রাইট নাউ””

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

টিউশনি মানেই বিনোদন !!!

টিউশনি মানেই বিনোদন। স্টুডেন্টের বাবা মা মানেই বিনোদনের বাক্স। এরা ছোটলোক থেকে ছোটলোক হতে পারে। বিশেষ করে যারা নব্য “বড়লোক” এরাই সবচেয়ে ছোটলোক!
.
কয়েকদিন আগে এক ছোটভাই ফোন দিয়ে টাকা ধার চাইলো, “ভাইয়া, এ মাসে টিউশনি থেকে টাকা পাই নি, কিছু টাকা ধার দিতে হবে”
বললাম, “টাকা দেয়নি কেন?”
–স্টুডেন্টের বাবা তো হজ্জে চলে গেছে।
স্টুডেন্টের মা বললেন হজ্জ থেকে আসলে দিবেন
— ওহ, আচ্ছা, তা বাসার এরা কি না খেয়ে আছে? তিন হাজার টাকা
রেখে যায় নি?
— ভাই, কি করবো, বলেন। কালই এরা শপিংয়ে গেসিলো।স্টুডেন্ট সাত হাজার টাকা দিয়ে একটা ড্রেস কিনছে। সেটা
আবার আজকে আমাকে দেখাইলো!
….. (কিচ্ছু বলার নাই। মনে পড়লো কয়েক বছর আগের একটা ঘটনা।)
.
এক ফ্রেন্ড ইংলিশ অনার্সে পড়তো সেকেন্ড ইয়ারে। খুব উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে টিউশনিতে জয়েন করতে গেছে। ঠিক ততটা মন খারাপ করে বাসায় আসছে। জিজ্ঞেস
করলাম, ঘটনা কি? সে যা বর্ণনা করলো, তাতে হাসবো না কাঁদবো নাকি উঠে দৌড় দিবো কিছুই বুঝতে পারছিলাম না।
….. স্টুডেন্টের বাবা বলতেসে আড়াই হাজার টাকা দিবে।
(তিনতলা নিজস্ব বাসায় থাকে। বাসায় এসি আছে)
এইটুকুও ঠিক ছিল।
স্টুডেন্টের বাবা জিজ্ঞেস করলো,
–তোমার এসএসসি ইন্টারে রেজাল্ট কি?
— জি, এসএসসিতে এ+, ইন্টারে 4.50
— ও, এ+ পাও নাই? তুমি কোন ইয়ারে?
— জি, এই তো সেকেন্ড ইয়ারে উঠছি।
— ও, তাহলে তো তুমি অনেক জুনিয়র! IELTS বা ইংলিশ কোন কোর্স করা আছে?
— জি,না আংকেল, আমি পড়াইতে পারবো না,আসি!
( রাগ করে চলে আসলো)
………..স্টুডেন্ট কোন ক্লাসের ছিল জানেন? স্ট্যান্ডার্ড ফোর!
..
সবচেয়ে বড় বিনোদন পেলাম আজ। কিছুক্ষণ আগে আমার কাজিন এসে হাসতে হাসতে হাসতে বলতেছে,
ভাই, আমার স্টুডেন্টের দাঁত অনেক শক্ত!
— হোয়াট??
.
— প্রায় দুইমাস হলো পড়াচ্ছি। পড়ানোর প্রথম দিন হতেই লক্ষ্য করছিলাম,পর্দার ওইপাশে দুইটা পা দেখা যায়। মানে
হলো, স্টুডেন্টের মা ওইপাশে দাঁড়াইয়া পাহারা দেন!
.
— তারপর?
.
— আজকে ছাত্রীকে বললাম, ক্যালকুলেটর নিয়ে আসো। আর সে যেই না দৌড় দিলো, পর্দার ওই পাশে তার মায়ের সাথে সংঘর্ষ! ছাত্রীর দাঁত লেগে তার মায়ের কপাল থেকে রক্ত বের হয়ে গেছে।

1438771831
— কাউসার আলম

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

বুরহানের শাস্তি

1195437989469106298liftarn_Police_brutality.svg.hi

বুরহান খুব চিন্তিত। আজ তার S.S.C পরীক্ষার রেজাল্ট দিবে। আর সকলের মত তার ভালো রেজাল্টের আশা না, পাশ করলেই খুশি। কারন এই নিয়ে তিন বারের মত পরিক্ষা দিছে সে। এই বার ফেল করলে মান সম্মান আর এক ফোটাও বেচে থাকবে না।

গতবার ফেল করার পর প্রতিবেশীদের কাছে অনেক অপমানিত হাওয়া লাগছে , এবার যেন এমন কিছু না হয় তার জন্য অনেক বেশি পরিশ্রম করেছে। বইয়ের প্রতিটা পাতা তার সাক্ষি। সবার সাথে হাসি মুখে কথা বললেও তার মনের ভিতর অজানা এক ভয় কাজ করছে আজ। যতটানা প্রতিবেশীদের ভয় পাচ্ছে তার থেকে বেশি তার বাবাকে ভয় পাচ্ছে সে। কারন তার বাবা ইউসুফ আলি যে এক রাগি পুলিশ অফিসার। চোর গুন্ডা পিটাতে সিদ্ধ হস্ত তিনি। অনেক বার বুরহানেরও ভাগ্য হয়েছে তার হাতে মার খাওয়ার ।এইতো কয়েক বছর আগেও মেরে দাত ভেঙে দিছিলো বুরহানের। কারন তেমন কিছু ছিল না, বাবার মুখের উপর পাদ মেরেছিল শুধু। ।

এদিকে ইউসুফ আলি মিস্টি নিয়ে বাড়িতে হাজির। ছেলে পাশ করলে সবাইকে মিস্টি খাওয়াবেন তিনি। বুরহান আরো বেশি চিন্তিত হয়ে পড়লো , বুঝতে পারলো এইবার পাশ না করলে ইউসুফ আলি আর তাকে দুনিয়ায় রাখবে না। হাড় মাংস আলাদা করে ফেলবে।

দুপুর ২টা বাজে। রেজাল্ট দিয়ে দিছে। বুরহানের সহপাঠী সবাই কত ভালো রেজাল্ট করেছে! কিন্তু ভাগ্যের পরিহাস আর নিয়তির খেলায় আবারো ফেল বুরহান।

রাগি পুলিশ রেজাল্টের একটা কপি নিয়ে বাসায় ছুটে এলেন , কিন্তু বুরহান বেপাত্তা। উঠানের পাশে আমগাছের মগডালে পালিয়েছে সে। রাগে টগবগ করে মাথার রক্ত ফুটছে ইউসুফ আলির। হারামজাদা বুরহান এবারও অংকে ডিম পেড়ে দেছে? পাড়াচ্ছি ডিম। ওকে আজ মেরেই ফেলবো। এভাবেই বিড়বিড় করে যাচ্ছে ইউসুফ আলি।

বাড়ির সবাই নিরব, শুধু উঠান ভরে পায়চারী করে বেড়াচ্ছেন তিনি। হঠাৎ পা ফসকে হুড়মুড় করে গাছ থেকে ইউসুফ আলির ঘাড়ের উপর পড়লো বুরহান। উঠানের উপর দুইজনই চিৎপটাং। চারিদিকে সরিষার ফুল দেখতে লাগলো ইউসুফ আলি আর এই সুযোগে দৌড়ে পালালো বুরহান। ইউসুফ আলিও কম নয়, ঝাড়ু হাতে বুরহানের পিছু নিলেন তিনি। জীবনে চোর ডাকাত কম ধরেননি ইউসুফ আলি, কিন্তু কেন জানি বুরহানের সাথে পেরে ওঠেন না কোন বার। প্রত্যেক বারই কিভাবে যেন পালিয়ে যায় সে। এবারো তাই হল। ইউসুফ আলি হাফাতে হাফাতে বাড়ি ফিরে এলেন। বাড়িতে অনেক লোক জড় হয়েছে, প্রতিবারই হয়। বুরহানের রেজাল্ট দেওয়ার দিন বাপ বেটার কান্ড দেখতে বাড়িতে আশে সবাই। ইউসুফ আলির রাগি মেজাজ দেখে আবার চলেও যায়।

রাত ২টা বাজে। ইউসুফ আলি ঘর ভরে পায়চারি করে বেড়াচ্ছেন , বুরহান এখনো বাসায় ফেরে নি। এদিকে ছেলের আসায় না খেয়ে বসে থেকে তার ইয়া মোটা ভুড়িটা শুকিয়ে আসছে। ভুড়ি এবং ছেলেকে নিয়ে ভিষন চিন্তায় পড়ে গেলেন তিনি। উপায় না পেয়ে অন্ধকারেই ছেলেকে খুজতে বেরিয়ে পড়লেন ।

উঠানের পাশে যেতেই আম গাছ থেকে কিছু একটা হুড়মুড় করে ইউসুফ আলির ঘাড়ের উপর পড়লো। আবারো চিৎপটাং তিনি । তবে অন্ধকারের জন্য এবার আর সরিষার ফুল দেখতে পেলেন না। জলদি টর্চ জালালেন। অবাক হওয়ার কিছু নেই, তার গুনধর পুত্র আবারও গাছ থেকে পড়েছে। ইউসুফ আলি এবার আর ভুল করলেন না, খপাৎ করে ধরে ফেললেন বুরহানকে। তারপর কি যেন চিন্তা করে আবার ছেড়েও দিলেন।

পরের দিন সকাল ৫ টা। ইউসুফ আলি সিদ্ধান্ত নিয়েছে আজ তিনি বুরহানকে অনেক বড় শাস্তি দিবেন , তাইতো সকাল হতে না হতে ছেলেকে ডেকে তুলেছেন। আজ সম্ভাবত বুরহানের জন্য অনেক বড় শাস্তি অপেক্ষা করছে। বাপের ঘাড়ের উপর একই গাছ থেকে ২ বার পড়া? শাস্তি হিসেবে সারা দিন বুরহানকে এই আম গাছে উঠার প্রাকটিস করতে হবে। এই শাস্তি দেওয়ার পেছনে ইউসুফ আলির একটা কারনও আছে। ছেলের চরিত্র সম্পর্কে তিনি যথেষ্ট জানেন। পরিক্ষায় তিন বার অংকে ডিম পেড়েছে হতচ্ছাড়াটা, যাতে বাপের ঘাড়ে তৃতীয় বার না পড়ে তাই এই আজব সিদ্ধান্ত ইউসুফ আলির। তৃতীয় বার কোন রিস্ক নিতে চাচ্ছেন না তিনি। ।

শাস্তি শুরু। বুরহান গাছের মগডালে , নিচে ইউসুফ আলি পাহারারত। সাফল্য পাবেন কি ইউসুফ আলি? নাকি বুরহান আবারো ………

[] রবি []

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

নামাজ আদায়ের ব্যাপারে কয়েকটি কোরআন ও হাদিসের বানী

12241410_1064698436887909_5209981809703383785_n১) “আবু হুরাইরা (রাদি আল্লাহু তাআলা আনহু) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন- যখন আদম সন্তান সিজদার আয়াত পাঠ করে, অতঃপর সিজদা করে তখন শয়তান কাঁদতে কাঁদতে একপাশে সরে দাঁড়ায় এবং বলতে থাকে, হায় আমার পোড়া কপাল, আদম সন্তানকে সিজদা করার নির্দেশ দেওয়া হলো সে সিজদা করলো। ফলে তার জন্য জান্নাত, আর আমাকেও সিজদার নির্দেশ করা হয়েছিল কিন্তু আমি অস্বীকার করেছিলাম, তাই আমার জন্য জাহান্নাম।” (সহীহ মুসলিম, কিতাবুল ঈমান অধ্যায়)

২) “আবু যুবাইর (রহিমাহুল্লাহ) হতে বর্ণিত, জাবির ইবনে আব্দুল্লাহ (রাদি আল্লাহু তাআলা আনহু) কে বলতে শুনেছি, আমি রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছিঃ ব্যক্তি এবং শিরক ও কুফরের মাঝখানে নামায বর্জন করাই হচ্ছে ব্যবধান।”*** (সহীহ মুসলিম, কিতাবুল ঈমান অধ্যায়)
৩) আল্লাহ তাআলা বলেন: “নিঃসন্দেহে নামাজ মানুষকে অশ্লীল ও মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখে”। (সূরা আল আনকাবূত – ৪৫)

৪) তিনি (স) বলেছেন: “আমাদের দলভুক্ত হতে নামায তাদের আলাদা করে দেয় যারা নামায ছেড়ে দেয়, যারাই নামায ছেড়ে দিবে তারাই কাফির”। আত-তিরমিযী কর্তৃক বর্ণিত,২৬১; আলবানী কর্তৃক সহিহ হাদীস রূপে বর্ণিত।

৫) “আব্দুল্লাহ ইবনে মাসুদ (রাদি আল্লাহু তাআলা আনহু) থেকে বর্ণিত, আমি রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞেস করলাম, কোন কাজটি আল্লাহর নিকট বেশী প্রিয়? তিনি বললেনঃ সময়মতো নামাজ আদায় করা।” (সহীহ মুসলিম, কিতাবুল ঈমান অধ্যায়)

যারা পোস্টটি পড়েছেন সবাই লাইক দিন
এবং শেয়ার করে অন্যদের পড়ার
সুযোগ করে দিন।

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।

সৌদি আরবে নাস্তিকদের সন্ত্রাসী হিসেবে ঘোষণা করে আইনও জারী করা হয়েছে।

12250036_1064747566882996_2710348834446140424_nসৌদি আরবে নাস্তিকদের সন্ত্রাসী হিসেবে ঘোষণা করে আইনও জারী করা হয়েছে। মুক্তমতের নামে দেশে উগ্রতা ছড়ানোর শঙ্কা থেকে সৌদি বাদশা বেশ কয়েকটি রাজ-আদেশ জারি করেছেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। সংস্থাটি জানায়, সম্প্রতি সৌদি আরবে ধর্মদ্রোহী লেখক রায়েফ বাদাউইকে আটকের পর থেকেই সৌদিতে ধর্মদ্রোহীদের উত্থান নিয়ে শঙ্কা দেখা দেয় রাজপরিবারে। এজন্য ইসলামের মৌল বিষয় নিয়ে কোনোরকম সমালোচনা, সৌদি রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে যেকোনো রকম কর্মকাণ্ডকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে বিবেচনা করতে ডিক্রি জারি করেছে সৌদি সরকার।

যারা পোস্টটি পড়েছেন সবাই লাইক দিন
এবং শেয়ার করে অন্যদের পড়ার
সুযোগ করে দিন।

দেশ-বিদেশের সকল খবর,
ব্রেকিং নিউজ ও সমসাময়িক
ইসলামিক আলোচনা পেতে : রিপোর্ট 24 বিডি তে লাইক দিন ।