সকল ড্রাইভার সমস্যার সমাধান

আজকে আপনাদের সাথে এমন একটি ড্রাইভার সফটওয়্যার শেয়ার করতে যাচ্ছি যা দিয়ে ডাউনলোড করতে পারবেন ল্যাপটপ , ডেস্কটপ, নেটবুক এর সকল প্রকার ড্রাইভার।

ড্রাইভারটির ফিচার সমূহ :-

  • পেইড ড্রাইভার পাচ্ছেন বিনামূল্যেতে, যার মূল্য $৩৯.৯৫ ডলার ।
  • সাপোর্টেড ভার্সন উইন্ডোজ xp,7,8,8.1,10 ইত্যাদি।
  • এটি একটি honest ড্রাইভার যা আপনার ল্যাপটপ এর মিসিং হার্ডওয়্যার গুলো show করবে।
  • অটোমেটিক খুঁজে বের করবে আপনার ইরর হার্ডওয়্যার গুলো।
  • অটোমেটিক/ম্যানুয়ালি খুঁজে বের করবে প্রয়োজনীয় হার্ডওয়্যার গুলো।
  • অটোমেটিক ডাউনলোড করবে প্রয়োজনীয় হার্ডওয়্যার গুলো।
  • ম্যানুয়ালি হার্ডওয়্যার ডাউনলোড সুবিধা।
  • অটোমেটিক/ম্যানুয়ালি হার্ডওয়্যার ইনস্টল  সুবিধা।
  • হিডেন ড্রাইভার স্ক্যান করার সুবিধা
  • প্রয়োজনীয় ড্রাইভার গুলো ডাউনলোড করে সংরক্ষণ এর সুবিধা।

কিভাবে ব্যবহার করবেন :-

  • নিচের দেয়া ডাউনলোড লিংক নিচের দেয়া দিয়া থেকে প্রথমে ডাউনলোড করে নিন।
  • ইনস্টল করুন।
  • ডেস্কটপ থেকে DRIVER ROBOT ওপেন করুন।
  • ড্রাইভার স্ক্যান এ ক্লিক করুন।
  • অটোমেটিক স্ক্যান করে ডাউনলোড অপসন শো করবে।
  • ডাউনলোড এ ক্লিক করুন।
  • রেজিস্টার কি সাবমিট করুন। (JCCQ-MAKC-KACK-6TSE-BN35)
  • ডাউনলোড করে ইনস্টল করুন ।

মূলত এটি একটি পেইড ড্রাইভার স্কানার তাই সুবিধা গুলোর মান ভালো। আশাকরি এটি ব্যবহার এর মাধ্যমে উপকৃত হবেন এবং আপনার ল্যাপটপ , ডেস্কটপ, নেটবুক এর সকল প্রকার ড্রাইভার ডাউনলোড ও ইনস্টল করতে সক্ষম হবেন।

ড্রাইভার টির  ডাউনলোড লিংক : click to download

Screenshot_1 copy

পেনড্রাইভ দিয়ে Windows 7/8 সেটাপ পদ্ধতি

বিসমিল্লাহি্র রাহমানির রাহিম

শুরুতেই কিছু কথা বলে নেই। একটা ইট একা কিছুই নয় কিন্তু হাজারো ইট একসাথে হয়ে তৈরী করে শক্তিশালী কাঠামো। আমরা কেউই তো আর সবজান্তা নই তাই ঠিক একই ভাবে একজনের জ্ঞান একা হয়ত কিছুই নয় কিন্তু অনেক জনের জ্ঞান একসাথে হলে নতুন নতুন কিছু উদ্ভাবন হয়। প্রত্যেকেরই অন্যের কাছে কিছু না কিছু শেখার আছে। তাই আমার মনে হয় শেয়ারিং এর মাধ্যমে সার্বিক ভাবে সকলের জ্ঞানের পরিধি বাড়ানো সম্ভব। তাই আমি যা জানি তা আপনাদের জানাতে চায় আর আপনারা যা জানেন তা আপনাদের কাছ থেকে শিখতে চায়। অন্যান্য দেশ প্রজুক্তিতে অনেক এগিয়ে গেছে, আমার মনে হয় আমারও এভাবেই এগিয়ে যাব এবং সেই দিন খুব বেশী দূরে নয়।
অনেক প্যাঁচাল পারা হল এবার আসল কথাই আসি। আমি এ পর্যন্ত অনেক সফটওয়্যার ট্রাই করেছি কিন্তু কোনটাতেই তেমন সুফল পাইনি। আর ঝামেলাও অনেক। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে যেই সফটওয়্যারটি শেয়ার করব সেটা দিয়ে আপনি সবচেয়ে সহজ উপায়ে আপনার পেনড্রাইভ দিয়ে কম্পিউটার এর অপারেটিং সিস্টেম (Windows 7/8) সেটাপ দিতে পারবেন।
তবে চলুন মাত্র ৭১৬ কে.বি. এর সফটওয়্যারটি এখনি ডাউনলোড করে কাজ শুরু করে দেই। সফটওয়্যারটি পোর্টেবল তাই ইন্সটল এর কোনো ঝামেলা নেই। এখান থেকে ডাউনলোড করে নিন।
ধাপ ১ – প্রথমে জিপ ফাইলটি আনজিপ করে নিন। তারপর ফাইলটি রান করুন। দেখবেন এরকম স্ক্রীন আসবে
ধাপ ২ – এরপর আপনার পেনড্রাইভ সিলেক্ট করে Quick Format এ টিক দিয়ে Do it করুন। পেনড্রাইভ ৮ জিবি হলে ভাল হয় তবে ৪ জিবি হলেও চলবে। Windows 8 এর জন্য ৮ জিবি লাগবে।
ধাপ ৩ – তারপর যা দিয়ে আপনি বুট করবেন সেটা সিলেক্ট করুন। অর্থাৎ ISO/DVD/Source File সিলেক্ট/ড্রপ করুন এভাবে
ধাপ ৪ – এবার কাজ শুরু হয়ে যাবে এবং এমন একটা স্ক্রীন আসবে
ধাপ ৫ – আপনার পিসি এবং পেনড্রাইভ এর গতির উপর নির্ভর করে কম-বেশী সময় লাগবে। সব শেষে এমন স্ক্রীন আসবে তারপর ক্লোজ করে আসল কাজ শুরু করে দিন।
ধাপ ৬ – এবার আপনি Boot Menu তে গিয়ে Pendrive এর Priority প্রথমে দিন। ঝামেলা এড়ানোর জন্য প্রথমবার Restart নেবার সময় পেনড্রাইভ খুলে নিন।
এভাবে আপনি খুব কম সময়ে পিসি বুট করতে পারবেন। পিসি বুট করা শেষ হলে পেনড্রাইভ FAT32 ফরম্যাট এ Format করে নিন। তারপর আরামে আপনার পিসি আর পেনড্রাইভ ইউস করুন। সবাই ভুল করে আমিও তার ঊর্ধ্বে নই। ভুল ত্রুতি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য অনুরধ করছি। পোস্টটি কেমন লাগলো তা Comment করে জানাতে ভুলবেন না।
আল্লাহ্ হাফেজ

সফটওয়্যারটির ডাউনলোড লিংক: https://goo.gl/I3boVC

Bootable-pen-drive copy

সুরক্ষিত করে নিন আপনার ফেসবুক একাউন্ট !

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৮০ শতাংশ মানুষই বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক ব্যবহার করে। মতামত, ব্যক্তিগত তথ্য, পরামর্শ-নির্দেশনাসহ যাবতীয় যোগাযোগের অন্যতম প্লাটফর্ম হয়ে দাঁড়িয়েছে এই ভার্চুয়াল দুনিয়া। যারা এই সাইটে যথেষ্ট তৎপর নন তাদেরও অন্তত একটি করে অ্যাকাউন্ট আছে।

হাজারো ব্যস্ততার মধ্যে ফেসবুকের সাথে সংযুক্ত থাকেন ব্যবহারকারীরা। কম্পিউটার, মোবাইল, আইপেডসহ বহু ডিভাইস দিয়ে স্ট্যাটাস আপডেট, ম্যাসেজিং, নোটিফিকেশন চেক করতে সার্বক্ষণিক লগইন থাকেন অনেকে। ব্যক্তিগত নয়, এমন ডিভাইস যেমন, অফিসে, বন্ধুর ল্যাপটপে বা কোথাও বেড়াতে গেলে হোটেলের ডেক্সটপ পিসিতে ফেইসবুক ব্যবহারের পর ভুলে লগআউট করা হয় না। তখনই পড়তে হয় নানা ধরণের বিপাকে। উপায় কি। এতে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য যেমন বেহাত হতে পারে, তেমনি কেউ একাউন্ট চালু থাকার সুযোগ নিয়ে বেআইনী কর্মকাণ্ড চালাতে পারে।

এ অবস্থায় খুব সহজেই দূরে বসে একাউন্টটি লগআউট করা সম্ভব। সহজ উপায় হলো, ফেসবুকে লগইন করে সেটিং অপশনে গিয়ে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার সময়, ‘Log me out of other devices’ এ ক্লিক করে submit করলেই সমস্যা সমাধান।

এবং আপনি যদি ফেসবুকের পাসওয়ার্ড অপরিবর্তিত রেখে অন্য ডিভাইস থেকে লগআউট করতে চান তাহলে প্রথমে ফেইসবুকে লগইন করে, একাউন্ট সেটিংসে গিয়ে ‘Security’ তে যেতে হবে।

তারপর ‘Where You’re Logged In’ এ ক্লিক করতে হবে।

এখানে যেখানে যেখানে কম্পিউটারে লগইন করা হয়েছে তা দেখাবে এবং কম্পিউটারের সময়, ডিভাইসের নাম, কোন শহর, কোন ব্রাউজার, কোন অপারেটিং সিস্টেম তা দেখাবে।

যেখান থেকে এবং যে ডিভাইস থেকে ফেইসবুক একাউন্টটি লগআউট করতে চান যেটিতে ‘End activity’তে ক্লিক করতে হবে।

তাহলে ফেইসবুক একাউন্টটি অন্যান্য ডিভাইস থেকে লগআউট হয়ে যাবে।

এবার দেখায় ফেসবুক আইডি হ্যাক থেকে বাঁচার উপায়।

# ফেসবুক আইডিতে ব্যাবহার করা ই-মেইল এবং ফেসবুক আইডির পাসওয়ার্ড ভিন্ন রাখা হবে। হ্যাকাররা হ্যাকের পরই প্রথম লক্ষ থাকে ই-মেইল এড্রেসটা বদলে ফেলা। আর কোনোক্রমে ই-মেইল এড্রেসটি বদলে ফেলতে পারলে হ্যাকিং হওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি পুনরুদ্ধার করা খুবই কঠিন হয়ে যায়। কারণ হ্যাকিং হওয়ার পর অ্যাকাউন্টটি পুনরুদ্ধার করার একমাত্র উপায় হলো ই-মেইল এড্রেস।

# ফেসবুকের কোথাও পাসওয়ার্ড দেয়ার প্রয়োজন হলে প্রথমেই লক্ষ রাখতে হবে ওয়েব এড্রেসটি মূল ফেসবুকের এড্রেস কী না। অনেক সময় কাছাকছি এড্রেসের এবং দেখতে সম্পূর্ণ ফেসবুকের ওয়েব সাইটের মতো সাইটগুলোতে পাসওয়ার্ড দিলেই সাইটটি হ্যাক হয়ে যায়।facebook.com– এর পরিবর্তে যদি facebookie.com, facabook.com ইত্যাদি রকম দেখা যায় তবে কখনোই ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড দেয়া যাবে না।

# পাবলিক কম্পিউটারে বসলে কাজের শেষে অবশ্যই লগআউট করতে হবে এবং পাবলিক কম্পিউটারে কখনোই পাসওয়ার্ড রিমেম্বার দেয়া যাবে না।

# কখনও কোথাও থেকে আসা Facebook Password Reset Confirmation এ রকম ই-মেইলে পাসওয়ার্ড রিসেটে ক্লিক করা যাবে না।

# পাবলিক কম্পিউটারে বসলে কাজ শেষে অবশ্যই cache এবং cookies ডিলেট করতে হবে।

# মেইলে আসা সফটওয়্যার না বুঝে সেট আপ দেয়া ঠিক না। অনেক সময় দেখা যায়,ফাইলটি দেখতে ভিডিও বা অডিও ফাইলমনে হচ্ছে কিন্তু আসলে এটি একটি সেট আপ ফাইল, যেটি সেটআপ দিলেই কম্পিউটারের পাসওয়ার্ড চলে যাবে দূর্বৃত্তদের কাছে।

# হ্যাকার যদি ফিশিং বা অন্য কোনো উপায়ে আপনার পাসওয়ার্ড জেনেও যায় তাহলেও সে আপনার আইডির কোনো ক্ষতিই করতে পারবে না। এর জন্য প্রথমেই যা করতে হবে তা হল যদি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এআপনার মোবাইল নাম্বার দেওয়া না থাকে তবে তা দিন। এবার আপনার account settings এ যান। সেখানে Account Security এর পাশে লিখা change অপশনে ক্লিক করুন। এবার Login Notifications এর নিচে লিখা Send me a text message সিলেক্ট করুন। এতে করে যদি আপনার সব সময় ব্যাবহার করা ডিভাইস (যেমন আপনার নিজের কম্পিউটার, মোবাইল) ছাড়া অন্য কোনো ডিভাইস থেকে লগইন করা হয় তবে সাথে সাথে আপনার মোবাইলে বার্তা যাবে।
এরপর Login Approvals এর নিচে লিখা Require me to enter a security code sent to my phone সিলেক্ট করুন।
এতে করে যদি আপনার সবসময় ব্যাবহার করা নিজের ডিভাইস ছাড়া অন্য কোনো ডিভাইস থেকে লগইন করার চেষ্টা করা হয় তবে ফেসবুক একটি কোড চাইবে যা আপনার মোবাইলে মেসেজ করে পাঠানো হবে। কোডটি ছাড়া কোনভাবেই লগইন করা সম্ভব হবে না।

# যদি ফেসবুক একাউন্টের পাসওয়ার্ড হ্যাক হয় এবং মেইল একাউন্টটি ঠিক থাকে তবে এই লিঙ্ক থেকে রিকয়েস্ট পাঠালে পাসওয়ার্ড সমাধান পাওয়া যাবে।https://ssl.facebook.com/reset.php

# যদি ওপরের লিঙ্কে কাজ না হয় তবে পাসওয়ার্ডটি পাওয়ার জন্য নিম্নলিখিত লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে। পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করতে হবে। http://web.facebook.com/help/¬identify.php

# যদি ই-মেইল এড্রেসটি পরিবর্তন হয়ে যায় তবে নিম্নলিখিত লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে। ফর্মটি পূরণ করে পাঠালে ফেসবুকের কর্মকর্তারা যোগাযোগ করবে।https://ssl.facebook.com/help/contact.php

আশাকরি এই পদক্ষেপ গুলো অনুসরণ করলে আপনি আপনার ফেসবুক আইডি নিরাপদে ব্যবহার করতে পারবেন।

facebook-front_179_2232542b copy

ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করুন বাংলালিংক সিম

যারা এখনো বাংলালিংক সিম রেজিস্ট্রেশন করতে পারেননি তারা সিম রেজিস্ট্রেশন করুন খুব সহজেই।

Banglalink-2G-Internet

রেজিস্ট্রেশন করতে: আপনার national id (NID) নাম্বার, জন্ম তারিখ, এবং নাম লিখে ৮৯০  নাম্বারে ফ্রি এসএমএস করুন এই ফরমেট এ: NID নাম্বার, Date-Month-Year, Name.

 

ফেসবুক প্রোফাইলে ছবির পরিবর্তে দেওয়া যাবে ভিডিও

 

ফেইসবুক সবসময়ই পরিবর্তনশীল। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পরিবর্তন এবং আপডেট হয় সবচাইতে জনকপ্রিয় এই যোগাযোগ মাধ্যমে । এবার ফেবু নিয়ে এল প্রোফাইলে স্থির ছবির পরিবর্তে দেওয়া যাবে ভিডিও। facebook-story2-582x437 copy

ফেসবুকে বড় ধরনের পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। এখন থেকে এই মাধ্যমটি ব্যবহারকারীরা প্রোফাইলে ছবির পরিবর্তে ভিডিও দিয়ে রাখতে পারবেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন বলা হয়, মোবাইলে ফেসবুক ব্যবহারকারীর প্রোফাইল পেজকে আরো উন্নত করতে একটি হালনাগাদ করা হচ্ছে। ফলে ব্যবহারকারীরা প্রোফাইলটি পারসোনালাইজ করাসহ প্রাইভেসি সেটিংস অধিক নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন।

বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, মোবাইলে এই মাধ্যম ব্যবহারকারীর প্রোফাইল পরিবর্তনের অভিজ্ঞতা আরও সহজ ও উন্নততর করতে কাজ করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এর কারণ দেখিয়ে তারা বলছেন, মোবাইল বিজ্ঞাপন থেকে বছরে ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি আয় আসে।

ফেসবুকে উল্ল্যেখযোগ্য পরিবর্তন হচ্ছে-প্রোফাইল ছবি হিসেবে ভিডিও যুক্ত করা যাবে। এখন থেকে প্রোফাইলে স্থির ছবিটির স্থানে ছোট একটি ভিডিও ক্লিপ বসিয়ে রাখা যাবে। এই ভিডিওটি অনেকটাই মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারের ভাইন নামের ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপের মতো কাজ করবে।

এছাড়াও ক্ষণস্থায়ী প্রোফাইল ছবিও বসিয়ে রাখতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। প্রিয় দলকে সমর্থন করে প্রোফাইলের ছবি পরিবর্তন কিংবা কোনো কারণে সাময়িকভাবে প্রোফাইলের ছবি পরিবর্তনের দরকার হলে তা সহজেই করা যাবে। নির্দিষ্ট সময় শেষে ওই ছবিটি সরে আগের প্রোফাইল ছবিটি আবার সচল হয়ে উঠবে।

এ ছাড়াও প্রোফাইলের ছবি, নির্দিষ্ট স্ট্যাটাস কে বা কারা দেখতে পাবেন সে বিষয়টির অধিক নিয়ন্ত্রণ ব্যবহারকারীর হাতে দিয়ে দেবে ফেসবুক।