কাজে নেমে পড়ল বিশ্বের প্রথম রোবট পুলিশ অফিসার

কাজে নেমে পড়ল বিশ্বের প্রথম রোবট পুলিশ অফিসার

দুবাইয়ে কাজে নেমে পড়ল বিশ্বের প্রথম রোবট পুলিশ অফিসার। রাস্তায় নজর রাখার জন্য এর আগে দুবাই পুলিশ নিয়োগ করেছিল দু‌ই রোবট পুলিশকর্মী ‘ল্যাম্বারজিনি’ আর ‘ফেরারি’কে। এবার তাদের মাথায় বসিয়ে দেওয়া হল এক রোবট পুলিশ অফিসারকে।

এখানেই শেষ নয়, দুবাই পুলিশের স্মার্ট সার্ভিসের প্রধান ব্রিগেডিয়ার খালেদ আল রাজুকি জানিয়েছেন, ২০৩০ সালের মধ্যেই দুবাইয়ের পুলিশ বাহিনীর এক-চতুর্থাংশই ভরে যাবে রোবট পুলিশকর্মীতে।

কাজে নেমে পড়ল বিশ্বের প্রথম রোবট পুলিশ অফিসার
কাজে নেমে পড়ল বিশ্বের প্রথম রোবট পুলিশ অফিসার

জানা গেছে, এই রোবটেরর মাথায় রয়েছে পুলিশের টুপি। সে সব সময় চক্কর মারছে বাইকে। আর তার বুকে রয়েছে একটা কম্পিউটারের টাচ স্ক্রিন। যেখানে যে কেউ কমপ্লেন করতে পারেন। ব্যবস্থা নেওয়া হবে সঙ্গে সঙ্গেই। আর তার সঙ্গে রয়েছে একটি ক্যামেরা। তবে রাত হলেই বাইকে আর রাস্তায় ঘোরাঘুরি করবে না সেই রোবট পুলিশ অফিসার। দাঁড়িয়ে পড়বে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু বাড়ি বুর্জ খলিফার সামনে। সেখানেই দাঁড়িয়ে থাকবে সারা রাত।

তবে এই রোবট পুলিশ অফিসারও অন্য পুলিশকর্মীদের মতো অপরাধী বা অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে পারবে না। গ্রেফতারির কাজটা আপাতত মানুষের ওপরেই ছেড়ে রাখল রোবট পুলিশ।

বন্ধ হয়ে গেল ফেইসবুক প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড পদ্ধতি

বন্ধ হয়ে গেল ফেইসবুক প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড পদ্ধতি

ফেইসবুকে অনেকেই ঘন ঘন প্রোফাইল পিকচার পাল্টাতে পছন্দ করেন। আবার অনেকেই আছেন যারা প্রোফাইলে নিজের ছবি দিতেই ভয় পান। ছবি অন্য কেউ ডাউনলোড করে নেবে বলে অনেকেই ফেসবুকে কোনও ডিপি’ই দেয় না। তাহলে আপনার জন্য আছে একটা বিরাট খুশির খবর। এই সমস্ত সমস্যার উপশমে কড়া ব্যবস্থা নিল মার্ক জাকারবার্গের ফেইসবুক।  

দীর্ঘ গবেষণার পর ফেইসবুক শুধুমাত্র প্রোফাইল পিকচারের জন্য নিয়ে এল নতুন পরিষেবা। প্রোফাইল পিকচারকে সুরক্ষিত উপায়ে এবং নিজের পছন্দের মত ব্যবহার করতে অত্যাধুনিক টুল নিয়ে এসেছে ফেসবুক। এই টুল ব্যবহার করে নিজের প্রোফাইল পিকচারকে ‘সেফ গার্ড’ করতে পারবে ফেইসবুক ব্যবহারকারীরা।

ফেইসবুকের প্রোডাক্ট ম্যানেজার আরতি সোমান জানিয়েছেন, “ফেইসবুক ব্যবহারকারীরা নিজেদের প্রোফাইল পিকচারের ওপর আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ চায়, এটা আমরা জানতে পেরেছি। আর সেই অনুযায়ীই আমরা কাজ শুরু করেছি এবং কীভাবে সাহায্য করা যায় সেটার জন্য পরিকল্পনা করেছি”।  

তিনি আরও জানিয়েছেন, “আমরা গবেষণা করে জানতে পেরেছি যে এমন অনেকেই আছে যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের ছবি ছড়িয়ে পড়ার ভয়ে প্রোফাইল পিকচার দেয় না। এই বিষয়ে ভাবনা চিন্তার পর আমরা প্রোফাইল পিকচারকে আরও বেশি করে প্রোটেক্ট করার চেষ্টা করেছি। এখন থেকে কেউই আর অন্যের প্রোফাইল পিকচার ডাউনলোড করতে পারবে না, শেয়ার করতে পারবে না, ফেসবুক ম্যাসেজেও পাঠাতে পারবে না। এমনকি ফ্রেন্ড লিস্টে নেই এমন কাউকে আর প্রোফাইল পিকচারে ট্যাগও করা যাবে না”।  

উল্লেখ্য অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের অনেক ক্ষেত্রেই ফেইসবুক প্রোফাইল পিকচারের স্ক্রিন শট নেওয়ায় বন্ধ করে দিয়েছে। প্রোফাইল পিকচারের অপব্যবহার বন্ধ করতে ফেইসবুক প্রোফাইল পিকচারের সাইডে একটি নীল রঙের নীল রেখাও দিয়ে দিয়েছে।

ব্যবহারকারীদের গুরুত্বপূর্ন যে ফিচারটি বন্ধের ইঙ্গিত দিলো ফেসবুক কর্তৃপক্ষ!

যে ফিচারটি বন্ধের ইঙ্গিত দিলো ফেসবুক

সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুক এমন এক পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে যাকে ছাড়া এক মিনিট চলাও অসম্ভব। আর এই কথা মাথায় রেখে ফেসবুক সংস্থার পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে কিভাবে আরও ভালো করা যায়।

এই লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত নিত্য নতুন কিছু ফিচার নিয়ে আসছে ফেসবুক। এই প্রোফাইল খুললেই প্রোফাইল পিকচারের নিচে একটি ছোট ঘর দেখা যায়। এটি মূলত ‘সার্চ বার’। এবার এই ফিচার নিয়ে ফেসবুক পরীক্ষা চালাচ্ছে।

একটি সার্চ বার তো রয়েছেই ফেসবুকের, তাহলে নতুন করে আরেকটি অ্যাড করার কারণ কী? এমন প্রশ্ন ব্যবহারকারীদের মনে আসতেই পারে। নতুন এই সার্চ বার মূলত একটি নির্দিষ্ট পরিসরে তথ্য খুঁজে বের করবে। ফেসবুকের এই ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা নতুন নয়। ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানান, সম্ভবত এই সার্চ অপশন বন্ধ করা হতে পারে।

যে ফিচারটি বন্ধের ইঙ্গিত দিলো ফেসবুক
যে ফিচারটি বন্ধের ইঙ্গিত দিলো ফেসবুক

এমনটা হওয়ার প্রধান কারণ, নতুন এই সার্চ বারের অধিকাংশ কার্যকারিতা মূল সার্চ বারেই রয়েছে। ধরুন আপনি আপনার প্রিয় মানুষটির সঙ্গে ঘটে যাওয়া কোনো বিরক্তিকর পোস্ট খুঁজতে চাইছেন, যেটিতে ‘পার্টি’ শব্দ আছে। তাহলে আপনার নাম, প্রিয় মানুষটির নাম আর ‘পার্টি’ শব্দটি নতুন এই সার্চ বারে লিখলেই এ-সম্পর্কিত পোস্ট আপনার স্ক্রিনে চলে আসবে। তবে আলাদাভাবে এই বিষয়টি সামান্য বিভ্রান্তিকর হতে পারে অনেকের কাছেই।

ফেসবুক মূলত সার্চ করার ফিচারকে আরও উন্নত করার চেষ্টা করছে। এর সঙ্গে ‘লেটেস্ট কনভারসেশন’ নামের সুবিধাটি নিয়েও কাজ করছে। এটি এমন একটি সুবিধা, কোনো নির্দিষ্ট বিষয়ের সাম্প্রতিক পাবলিক পোস্ট ইউজারের স্ক্রিনে দেখা যাবে।

ক্যাম্পাস পর্যবেক্ষণ করবে রোবট : রেঞ্জার ইউনিট উদ্বোধনকালে বেরোবি উপাচার্য

এইচ. এম নুর আলম, বেরোবি প্রতিনিধি : রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়কে (বেরোবি) আগামী তিন মাসের মধ্যে দেশের অন্যতম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বিটিএফও। মঙ্গলবার একাডেমিক ভবনের গ্যালারি রুমে আয়োজিত বিশ্ববিদ্যালয়ের নারী শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ গার্লস গাইড অ্যাসোসিয়েশনের ‘বেরোবি রেঞ্জার ইউনিট’ এর উদ্বোধন ও এই সংক্রান্ত এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

উপাচার্য আরো বলেন, দেশের অন্যতম আধুনিক মানের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গড়ে তুলতে অচিরেই যুক্তরাষ্ট্র থেকে ১০টি রোবট আনা হবে। এসব রোবট ক্যাম্পাসের একাডেমিক ভবনসহ বিভিন্ন ভবনে সংশ্লিষ্টদের কর্মকান্ড পর্যবেক্ষন করবে। অনতিবিলম্বে ক্যাম্পাসের সাবমেরিন ক্যাবল সংযুক্ত হবে। ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে ব্যাংকের শাখা স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কোন অবস্থাতেই পিছিয়ে থাকবে না বিশ্ববিদ্যালয়।

ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক কাশফিয়া ইয়াসমিন অন্বা এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, বাংলাদেশ গার্লস গাইড অ্যাসোসিয়েশনের আঞ্চলিক ট্রেইনার তানিয়া আমিন ও সুমাইয়া তাবাস্সুম এবং আঞ্চলিক ট্রেজারার ওয়ালেদা বেগম প্রমুখ।

পৃথিবীর মত আরো ১০ গ্রহের সন্ধান পেল নাসা

পৃথিবীর মত আরো ১০ গ্রহের সন্ধান পেল নাসা

আমাদের সৌরজগতের বাইরে আরও ১০টি নতুন গ্রহের অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। তাদের টেলিস্কোপে ধরা পড়েছে এই ১০টি গ্রহ। যেখানে থাকতে পারে প্রাণের অস্তিত্ব। নাসার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, প্রাণ সৃষ্টি হতে গেলে যে পরিবেশের প্রয়োজন তা রয়েছে এই গ্রহ গুলিতে।

পৃথিবীর মত আরো ১০ গ্রহের সন্ধান পেল নাসা
পৃথিবীর মত আরো ১০ গ্রহের সন্ধান পেল নাসা

মহাকাশে অন্য গ্রহের অস্তিত্ব সম্পর্কে বহুদিন ধরেই খোঁজ চালাচ্ছিল নাসার কেপলার টেলিস্কোপ। অভিযান শেষে সোমবার নাসার পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, এই টেলিস্কোপেই ধরা পড়েছে ৪৯ টি নতুন গ্রহ। যাদের মদ্যে ১০টি গ্রহে রয়েছে প্রাণ সঞ্চার হওয়ার মতো পরিবেশ।

এই বিষয়ে গবেষণা চালানো বিজ্ঞানী মারিও পেরেৎ জানিয়েছেন, সম্ভবত আমরা একা নেই। কারণ চার বছর ধরে খোঁজ চালিয়ে পৃথিবীর মতো আরও কিছু গ্রহের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে।

ইন্সটাগ্রামের ছবি থাকবে এবার আর্কাইভে

ইন্সটাগ্রামের ছবি থাকবে এবার আর্কাইভে

নিজেকে নতুন ফিচারে আরও সুন্দর ও গ্রহণযোগ্য করতে ইন্সটাগ্রাম আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল। নিজের শেয়ার করা ছবি দেখাতে ফটো-শেয়ারিং অ্যাপ স্ন্যাপচ্যাটের ‘মেমোরিজ’-এর মতো ‘আর্কাইভ’ নামের ফিচার চালু করেছে ইন্সটাগ্রাম। এই ফিচার ইউজারদের তাদের ছবি আর মুছে দেবে না বরং কিছু ছবি শেয়ার করা তাদের জন্য আরও সহজ করবে বলে জানিয়েছে ইন্সটাগ্রাম।

সম্প্রতি সংস্থার তরফ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আপনি কী তা আপনার প্রোফাইল থেকে প্রকাশ পায় আর এটি সময়ের সঙ্গে বদলায়। আর্কাইভ ফিচারের মাধ্যমে আপনি আগের মুহূর্তগুলো ধরে রাখার সঙ্গে নিজের মতো করে প্রোফাইল সাজানোর সুযোগ পাবেন। ’

ইন্সটাগ্রামের ছবি থাকবে এবার আর্কাইভে
ইন্সটাগ্রামের ছবি থাকবে এবার আর্কাইভে

এই ফিচার কোনো ইউজারকে তার প্লাটফর্মে আগে শেয়ার করেছেন এমন পোস্ট না মুছে লুকিয়ে ফেলার সুযোগ দেবে। এই পোস্টগুলো আর্কাইভ সেকশনে সরিয়ে দিলে এগুলো শুধু ইউজাররা নিজেই দেখতে পাবেন। আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘আর্কাইভ’ ফিচারটির সঙ্গে ২০১৬ সালে স্ন্যাপচ্যাটে আনা ‘মেমোরিজ’ ফিচারের মিল রয়েছে।

ফেসবুকে এবার কৃত্রিম গোয়েন্দা মোতায়েন!

ফেসবুকে এবার কৃত্রিম গোয়েন্দা মোতায়েন

ইন্টারনেটের মাধ্যমে সন্ত্রাসের প্রচার রুখতে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এবার কৃত্রিম গোয়েন্দা মোতায়েন করতে যাচ্ছে। ইদানীং ফেসবুকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে আস্কারামূলক পোস্ট দেখা যাচ্ছে। আর সেই পোস্ট ছড়িয়ে পড়ছে মিনিটের মধ্যে।  

বৃহস্পতিবার ফেসবুকের এক কর্মকর্তা জানান, যে মুহূর্তে ফেসবুকে এই ধরনের কোনও পোস্ট করা হবে, সেই মুহূর্তেই ফেসবুকের কৃত্রিম গোয়েন্দারা এই পোস্ট সরিয়ে দেবে। তাই এবার থেকে ফেসবুকে কিছু পোস্ট বা শেয়ার করার সময় সবাইকেই অতিরিক্ত সতর্ক থাকতে হবে।   

‘চাইল্ড পর্নোগ্রাফি’ রুখতে ইতিমধ্যেই ফেসবুকের এই ধরনের টুল আছে। এতদিন পর্যন্ত কোনও পোস্টে কেউ রিপোর্ট না করলে ফেসবুক কোনও পদক্ষেপ নিতে পারত না। কিন্তু এবার এই কৃত্রিম গোয়েন্দা এই ধরনের পোস্ট নিজেই সনাক্ত করে, তা ফেসবুক থেকে সরিয়ে দিতে পারবে।

ফেসবুকে এবার কৃত্রিম গোয়েন্দা মোতায়েন
ফেসবুকে এবার কৃত্রিম গোয়েন্দা মোতায়েন

যেভাবে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে একের পরে এক সন্ত্রাসের ঘটনা ঘটে যাচ্ছে তাতে ফেসবুকের মতো সোশ্যাল মিডিয়ার প্রভাব রয়েছে কি না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সেই প্রশ্নের জবাব দিতেই ফেসবুক এই পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানা গেছে। ছবি, ভিডিও বা কোনও লেখা-সহ যে সমস্ত পোস্ট সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে আস্কারা দেবে, তা সবই ধরা পড়বে ফেসবুকের এই পদ্ধতিতে।  

কৃত্রিম গোয়েন্দা হলেও, পোস্টগুলি সত্যিই সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে আস্কারা দেওয়ার মতো কিনা, তা পর্যবেক্ষণের দায়িত্বে থাকবেন ফেসবুকের কর্মীরাই। এই কাজের জন্য ফেসবুক ১৫০ জনকে নিযুক্ত করেছে।

চাঁদের মাটিতে আলু চাষ!

চাঁদের মাটিতে আলু চাষ

আসন্ন চন্দ্র অভিযানের অংশ হিসেবে চাঁদের মাটিতে আলু চাষের পদক্ষেপ নিচ্ছেন চীনের বিজ্ঞানীরা। চংকিং মর্নিং পোস্টের বরাত দিয়ে বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী বছরই চ্যাং’ই-ফোর নামে চাঁদে অভিযান চালাবে চীনা জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

সে সময়ই ছোট সিলিন্ডারের মধ্যে আলু সিল করে পাঠানো হবে। সিলিন্ডারের ভেতরে ‘মিনি ইকোসিস্টেম’ ব্যবস্থা থাকবে। সেখানে গুটিপোকার লার্ভাও পাঠানো হবে।

এই প্রকল্পের প্রধান নকশাকার ও চংকিং ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক জি জেংজিন বলেন, চাঁদের মাটিতে আলু চাষের আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হবে। এ জন্য আগে সেখানে কীটপতঙ্গ পাঠানো হবে।

চাঁদের মাটিতে আলু চাষ
চাঁদের মাটিতে আলু চাষ

চায়না রেডিও ইন্টারন্যাশনাল বলছে, চাঁদের জমিতে আলুর চারা বেঁচে থাকবে কি না, তা নিশ্চিত হতেই বিজ্ঞানীরা চাঁদে কীটপতঙ্গ পাঠানোর পরিকল্পনা করছেন।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মিনি ইকোসিস্টেম ক্যাপসুলটির ওজন হবে তিন কেজি। এর দৈর্ঘ্য ১৮ সেন্টিমিটার ও প্রস্থ ১৬ সেন্টিমিটার। সিলিন্ডারে লার্ভা থেকে ডিম ফোটা মাত্রই কার্বন তৈরি হবে। আর আলুর চারা থেকে বেরোবে অক্সিজেন। এভাবে মিনি ইকোসিস্টেম ক্যাপসুলের ভেতর কার্বন ও অক্সিজেনের আদান-প্রদান চলবে। আলু চাষের এই পুরো প্রক্রিয়া বিজ্ঞানীরা লাইভ সম্প্রচার করার কথাও ভাবছেন।

জি জেংজিন বলেন, ‘আমরা আশাবাদী, পরিবেশ নিয়ে এটা সচেতনতা সৃষ্টি করবে এবং মহাকাশ সম্পর্কে মানুষের আগ্রহ বাড়বে।’

পৃথিবীর বাইরে ফসল ফলানোর প্রচেষ্টা এটাই প্রথম নয়। এর আগে গত মার্চ মাসে পেরুর ইন্টারন্যাশনাল পটেটো সেন্টার (সিআইপি) নাসার অ্যামেস রিসার্চ সেন্টারের সঙ্গে মঙ্গলগ্রহে যৌথভাবে আলুর চাষ করা যাবে কি না, তা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করেছে। এ ছাড়া ২০১৬ সালের অক্টোবরে নাসার বিজ্ঞানীরা জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের জন্য ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনে সফলভাবে লেটুসপাতার চাষ করেছিলেন।

বিদ্যুৎ বিল কমানোর ৬ উপায়

বিদ্যুৎ বিল কমানোর ৬ উপায়

বাড়ির বিদ্যুৎ বিল বেড়েই চলেছে? অনেক চেষ্টা করেও কমাতে পারছেন না? গরমকাল চলায় এসি চালালেই বিল বাড়ছে আরও। এখন কি করবেন? অনেক সময় আমাদের কিছু গাফিলতির কারণেও বাড়তে থাকে বিল। জেনে নিন বিদ্যুৎ বিল বাঁচানোর ৬ উপায়।

বিদ্যুৎ বিল কমানোর ৬ উপায়
বিদ্যুৎ বিল কমানোর ৬ উপায়

 ১. রান্না করতে করতে বার বার ওভেনের দরজা খুলবেন না। বাইরে থেকেই দেখে বোঝার চেষ্টা করুন। দরজা খুললে তাপমাত্রা কমে যায়। আবার আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে ওভেন বেশি বিদ্যুৎ ব্যয় হয়।

২. যখন মেশিন বা ইস্ত্রি ব্যবহার করবেন না তখন প্লাগ খুলে রাখুন। কারণ প্লাগ না খুলে সুইচ বন্ধ রাখলেও কিছুটা বিদ্যুৎ খরচ হয়।  

৩. যখন ঘরে থাকবেন না অপ্রয়োজনে আলো, পাখা চালিয়ে রাখবেন না। সুইচ অফ করে রাখুন।  

৪. গরমকালে এসি চালালে তরতর করে বাড়ে বিদ্যুৎ বিল। অপ্রয়োজনে এসি না চালিয়ে পাখা চালান। এতে খরচ অনেক কমে যাবে।  

৫. কম্পিউটার যখন ব্যবহার করবেন না তখন চালিয়ে রাখবেন না। বন্ধ করে রাখুন অথবা স্লিপ মোডে রাখুন। এতে বিদ্যুৎ কম খরচ হবে।  

৬. অনেকেই বাড়িতে ডিশ ওয়াশার ব্যবহার করি। অনেক বাসন ধুয়ে নিন। কিন্তু হিট ড্রাই না করে বাতাসে শুকিয়ে নিন।